মাঙ্কিপক্স : বাংলাদেশে আক্রান্ত সন্দেহে তুরস্কের নাগরিক হাসপাতালে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাঙ্কিপক্স আতঙ্ক বাংলাদেশেও! ঢাকায় আসা তুরস্কের এক নাগরিক এই রোগে আক্রান্ত। এমন সন্দেহই করা হচ্ছে। তাঁকে রাজধানীর সরকারি একটি হাসপাতালে ভর্তিও করা হয়েছে। ওই ব্যক্তির পরীক্ষা-নিরীক্ষা ভালোভাবে চলছে।

মঙ্গলবার দুপুরে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতাষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক তাহমিনা শিরীন বলেন, ‘বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা একজন বিদেশ ফেরৎ ব্যক্তি মানকিপক্সে আক্রান্ত বলে সন্দেহ করেছেন। বিষয়টি আইইডিসিআরকে জানানো হয়েছে। আমরা এখন তাঁর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার অপেক্ষায়।’ ওই ব্যক্তিকে রাজধানীর মহাখালির সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে রাখা হয়েছে। সেখানেই তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা হচ্ছে। কবে নাগাদ পরীক্ষার ফলাফল জানা যাবে তা নিশ্চিত করে কেউ বলতে পারছেন না।

আরও পড়ুন : মাঙ্কিপক্স কতটা ভয়ঙ্কর ?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) গত ৪ জুনের হিসাব অনুযায়ী, নতুন করে প্রাদুর্ভাবের পর আফ্রিকার বাইরে বিশ্বের মোট ২৭টি দেশে এ পর্যন্ত মাঙ্কিপক্সের রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। রোগীর সংখ্যা ৭০০ ছাড়িয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, অনেকটা গুটিবসন্তের মতো হলেও মাঙ্কিপক্সের উপসর্গ মৃদু। শুরুতে জ্বর, মাথাব্যথা, শরীরব্যথা, ক্লান্তি, অবসাদ ইত্যাদি দেখা দেয়। ফুলে যেতে পারে লসিকা গ্রন্থি। এক থেকে তিন দিনের মধ্যে সারা গায়ে ফুসকুড়ি ওঠে। মুখে শুরু হয়ে সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে এই ফুসকুড়ি। বসন্তের মতোই প্রথমে লাল, তারপর ভেতরে জলপূর্ণ দানা, শেষে শুকিয়ে পড়ে যেতে থাকে। দুই থেকে চার সপ্তাহ স্থায়ী হয় এই রোগ। তারপর নিজে নিজেই সেরে যায়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে তেমন বড় কোনো জটিলতা হয় না।

আলোচিত
সমকালীন প্রসঙ্গ
Edit Template

সম্পাদক ও প্রকাশক : সুভাষ সিংহ রায়
নির্বাহী সম্পাদক : হামিদ মোহাম্মদ জসিম

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় :

১২৮/৪, পূর্ব তেঁজতুরি বাজার, তৃতীয় তলা, কারওয়ান বাজার, ঢাকা- ১২১৫
ফোন : পিএবিএক্স- +৮৮-০২-৫৫০১২৬৪০-১
ফ্যাক্স : + ৮৮ ০২ ৪৮১২০৮৫৩
ই-মেইল : banglabichitra17@gmail.com

যুক্ত থাকুন

© সাপ্তাহিক বাংলা বিচিত্রা কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত ২০২২

 ওয়েবসাইট নির্মান ও ব্যবস্থাপনায়ঃ Contriver IT